Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

(ক) নিবন্ধন ও  উপ আইন সংশোধনঃ

১। বৈধ উপায়ে নিজেদের আর্থ সামাজিক অবস্থার উন্নতির জন্য ন্যুন্যতম ২০ জন একক ব্যক্তির সমন্বয়ে গঠিত  প্রাথমিক  সমবায় সমিতির নিবন্ধন  প্রদান করা হয়।

২। নিবন্ধনেরসময় সুনির্দিষ্ট বিধানাবলি সম্বলিত উপ-আইনের মাধ্যমে নিবন্ধন করা হয় এবং পরবর্তীতে প্রয়োজন বোধে নিবন্ধন, উপ আইন, সংশোধন করা হয়।

৩। সরকারী কর্মসুচির আওতায় বিত্তহীন ভূমি ও আশ্রয়হীনদের দারিদ্র বিমচনের লক্ষ্যে গঠিত প্রাথমিক সমবায় সমিতির নিবন্ধনের জন্য ৫০/- টাকা ও অন্যান্য প্রাথমিক সমবায় সমিতির নিবন্ধনের  ক্ষেত্রে ৩৪৫/= টাক ট্রেজারী চালানের মাধ্যমে নিবন্ধন ফি জমা দিতে হয়।

৪। দারিদ্র বিমচনের লক্ষ্যে স্বেচ্ছায় বা সরকারি কর্মসূচির আওতায় গঠিত প্রাথমিক সমবায় সমিতির নিবন্ধনের জন্য কমপক্ষে ৩০০০/= টাকা, ক্রেডিট  কো-অপাঃ সোঃ লিঃ  নিবন্ধনের জন্য ১  কোটি টাকা এবং অন্যান্য প্রাথমিক সমবায় সমিতির নিবন্ধনের জন্য কমপক্ষে ২০,০০০/= টাকা, পরিশোধিত মূলধন থাকতে হয়। 

(খ) ব্যবস্থাপনা, অডিট, পরিদর্শন, বিরোধ নিষ্পত্তি অবসায়নঃ

১। সমিতির ব্যবস্থাপনা গনতান্ত্রিক ভাবে কমিটি কর্তৃক পরিচালিত হয়। কোন সমবায় সমিতি নির্বাচন করতে ব্যর্থ হলে প্রযোজ্য ক্ষেত্রেরে উপজেলা সমবায় অফিসার, জেলা সমবায় অফিসার, বিভাগীয় যুগ্ম-নিবন্ধক কর্তৃক আইনের আওতাধীন অন্তবর্তী ব্যবস্থাপনা কমিটি নিয়োগ করে থাকেন।

২। প্রযোজ্য ক্ষেত্রে উপজেলা সমবায় অফিসার, জেলা সমবায় অফিসার, বিভাগীয় যুগ্ম-নিবন্ধক ও নিবন্ধক কর্তৃক ক্ষমতাপ্রাপ্ত কোন কর্মচারী বা ব্যক্তি দ্বারা প্রাথমিক, কেন্দ্রীয় ও জাতীয় সমবায় সমিতির ব্যবস্থাপনা ও আর্থিক কার্যক্রমের ওপর বাৎসরিক নিরীক্ষা সম্পাদন করা হয়। সম্পাদিত অডিট প্রতিবেদনে উল্লিখিত নীট লাভের উপর ১০% অডিট ফি আদায়পূর্বক ট্রেজারি চালানের মাধ্যমে সরকারী রাজস্ব খাতে জমা প্রদান করা হয় এবং নীট লাভের উপর সমবায় উন্নয়ন তহবিল ৩% ধার্য করে আদায় পূর্বক ব্যাংকে ডিডি এর মাধ্যমে প্রধান কার্যালয়ে প্রেরন করা হয়। প্রাথমিক, কেন্দ্রীয় ও জাতীয় সমবায় সমিতির নির্বাচনসহ যে কোন সৃষ্ট বিরোধ যথাক্রমে জেলা সমবায় অফিসার, বিভাগীয় উপ-নিবন্ধক (বিচার), বিভাগীয় যুগ্ম-নিবন্ধক ও নিবন্ধকের নিকট দায়ের করা হলে তিনি বা নিযুক্ত শালিশকারির ন্যায় বিচার ও সমতা ও সু-বিবেচনা প্রসূতভাবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রায় প্রদান করেন রায়ে স্ব-ক্ষুব্দ পক্ষ  বিভাগীয় উপ-নিবন্ধক (বিচার), বিভাগীয় যুগ্ম-নিবন্ধক ও নিবন্ধকের নিকট আপিল করতে পারেন। বিরোধ/আপিল মামলার সাথে ১০০/- টাকা কোর্ট ফি সংযুক্ত করতে হয়।

৩। প্রাথমিক, কেন্দ্রীয় ও জাতীয় সমবায় সমিতি অকার্যকর হলে কিংবা সদস্যগণ সমিতি পরিচালনায় অনাগ্রহী হলে যথাক্রমে জেলা সমবায় অফিসার, বিভাগীয় যুগ্ম-নিবন্ধক, ও নিবন্ধক সমিতিকে অবসায়ন করতে পারেন। আবার সদস্যদের আগ্রহের কারনে অবসায়ন আদেশ প্রত্যাহার করতে পারেন।

(গ) প্রশিক্ষণঃ

১। কুমিল্লা শহরের উপকণ্ঠে কোটবাড়িতে অবস্থিত দেশের শীর্ষ সমবায় প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ সমবায় একাডেমি এবং নরসিংদী, ফরিদপুর, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা সহ মোট ৯ টি আঞ্চলিক সমবায় প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানে কর্মকর্তা, কর্মচারী, সমিতির সদস্যদের প্রশিক্ষণ সেবা প্রদান করা হয়।

২। জেলা সমবায় কার্যালয় হতে ভ্রাম্যমাণ প্রশিক্ষকগন সমিতিতে গিয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকেন।

৩। সমবায় অধিদপ্তর ঢাকার সদর কার্যালয় ও বাংলাদেশ সমবায় একাডেমিতে অবস্থিত ২/৩ টি অত্যাধুনিক কম্পিউটার ল্যাবের মাধ্যমে সমবায় অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারীদের আধুনিক তথ্য প্রযুক্তিগত প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকেন।

(ঘ) অভিযোগ নিস্পত্তিঃ

১। কোন অভিযোগ থাকলে তা উপজেলা সমবায় অফিসার, জেলা সমবায় অফিসার, বিভাগীয় যুগ্ম-নিবন্ধক ও নিবন্ধকের নিকট দাখিল করলে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে তা নিস্পত্তি করা হয়ে থাকে।

এছাড়াও  সমবায় সংক্রান্ত তথ্য বা পরামর্শের প্রয়োজন হলে যে কোন সময় সমবায় কার্যালয়ে কোন ব্যাক্তি পরামর্শ পেতে পারে ।